বিচিত্র

কাবা শরীফে নামাজে স্বামী, ছায়া দিলেন স্ত্রী

সৌদি আরবের ফটোগ্রাফার রাইদ আলেহায়ানি কখনো কল্পনাও করেননি তাঁর একটি ছবি সারা বিশ্বে এ রকম জনপ্রিয় হবে। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়ায় আলোচিত ছবিটি প্রকাশিত হয়েছিল।

এতে দেখা যায়, কাবা শরিফের পাশে এক লোক নামাজ আদায় করছেন আর তাঁর স্ত্রী নিজের ছায়া স্বামীর শরীরের ওপর ফেলেছেন, যাতে রোদে তাঁর কষ্ট না হয়।

এবারের হজের মধ্যে আরাফাতের দিন ছবিটি তোলা। যদিও এরই মধ্যে হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে।
ফটোগ্রাফার আলেহায়ানি বলেন, তিনি দৃশ্যটি পবিত্র মসজিদের ওপর থেকে দেখছিলেন এবং ছবিটি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেন।

এরপর এটি ভাইরাল হয়েছে। লাখ লাখ লাইক ও কমেন্টে ভরে যায় তাঁর ফেসবুক। সৌদি আরবের মিস্ক ফাউন্ডেশনের অধীনে আলেহায়ানি চলতি বছর হজ কাভার করেন। তিনি বলেন, ছবিতে থাকা ভদ্রলোক তাঁর সঙ্গে দেখা করেছেন এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ ছবিটি শেয়ারের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে গেছেন।

’মুহাম্মদ’ নামটি ইসলাম ধর্মে একটি প্রিয় নাম। যাঁর জন্ম না হলে এই পৃথিবীর জন্ম হতো না সেই হযরত মুহাম্মদ (সা:) মুসলমানদের কাছে এক প্রিয় নাম। ব্রিটিশ ছেলে শিশুদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম মুহাম্মদ। সম্প্রতি ব্রিটেনের একটি নতুন গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

এমন এক সময় ছিল যখন ’মুহাম্মদ’ নাম শুনে কাফেররা থমকে যেতো। কারণ মুসলমানদের সবচেয়ে প্রিয় ব্যক্তিত্ব হযরত মুহাম্মদ (সা:)। তাঁর জন্ম না হলে এই পৃথিবী ভ্রমাণ্ড কোনো কিছুরই জন্ম হতো না। ছোট বেলা থেকেই হযরত মুহাম্মদ (সা:)কে সবাই ’মুহাম্মদ’ বলেই ডাকতেন। শুধু ইসলাম ধর্মের অনুসারী নয়, অন্যান্য ধর্মাবলম্বিদের কাছেও ছিলেন তিনি সমানভাবে জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব।

তিনি ছিলেন এক সত্যবাদি মহাপুরুষ। আর তাই বিধর্মীরাও ’মুহাম্মদ’ (সা:)কে ’আল আমিন’ বলেও ডাকতেন। সেই মহাপুরুষের নাম পৃথিবীর অনাদি অনন্তকাল ধরে উজ্জ্বীবিত থাকবে সেটিই বাস্তব সত্য। যুক্তরাজ্যে ঘটেছেও তাই। মুসলিম রাষ্ট্র নয় অথচ সেখানে ’মুহাম্মদ’ নামটি কত জনপ্রিয়!

গত বছর অলিভার নামটিকে হটিয়ে মুহাম্মদ নামটি জনপ্রিয় নামের তালিকার শীর্ষস্থান দখল করেছে। ব্রিটেনের একটি নতুন গবেষণা বলছে, ব্রিটিশ ছেলে শিশুদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম হচ্ছে মুহাম্মদ। বেবি সেন্টার চলতি বছরের জন্য শিশুদের জনপ্রিয় নামের যে তালিকা তৈরি করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে, মুহাম্মদ নামটি শিশুদের সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম হিসেবে তালিকার শীর্ষে রয়েছে।

ওই জরিপে আরও বলা হয়, অলিভার এবং জ্যাক এই দুই নামকে পেছনে ফেলে এবার প্রথম স্থান দখল করে নিয়েছে ’মুহাম্মদ’ নামটি। অথচ এর আগে ’মুহাম্মদ’ নামের স্থান ছিল ২৮ নম্বরে। প্যারেন্টিং ও প্রেগনেন্সি ওয়েবসাইট বেবিসেন্টারের নির্বাহী সম্পাদক সারাহ রেডশো দ্য গার্ডিয়ানকে জানান, ৫৬০০০ শিশু-জন্মের হিসেব অনুযায়ী ওমর, আলী এবং ইব্রাহীম – এই তিনটি নামও ছেলে শিশুদের ১০০ নামের তালিকায় রয়েছে।

১০০টি নামের ওপর এই জরিপটি পরিচালনা করা হয়। অন্যদিকে মেয়েদের নামের মধ্যে এগিয়ে রয়েছে ’নূর’ নামটি। এর স্থান হচ্ছে ২৯। অপরদিকে ’মরিয়ম’ নামটি ৫৯ নম্বর হতে ৩৫তম স্থানে চলে এসেছে। পাশাপাশি ছেলেদের অন্যান্য জনপ্রিয় নাম হচ্ছে জ্যাক, নোয়া এবং জেকব।

অথচ আশ্চর্যজনক ব্যাপার হচ্ছে, ব্রিটিশ রাজপরিবারের নামগুলো দিনকে দিন জনপ্রিয়তা হারাচ্ছে। এদের মধ্যে চার্লি এবং হ্যারির অবস্থান যথাক্রমে ৬ষ্ঠ ও ৭ম। উইলিয়াম এবং জর্জের স্থান হচ্ছে ১২তম এবং ১৮তমতে রয়েছে।

উল্লেখ্য, ’মুহাম্মদ’ নামটি যে শুধু এবারই প্রথম হলো তা নয়, এর আগে ১৯৫০ সালে ’মুহাম্মদ’ নামটি শীর্ষস্থান দখল করে। এরপর রয়েছে চার্লি, হ্যারি, এমিলি, লিলি, অলিভিয়া ইত্যাদি নাম। মরিয়াম নামটিও গত বছর তালিকার ৩৫ নম্বরে উঠে এসেছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close