প্রবাস

`নিরাপদ সড়ক চাই’ আন্দোলনে ‘আনন্দধারা’র উদ্যোগে মেলবোর্ন-প্রবাসীর সহমর্মিতা

অনলাইন ডেস্ক: স্কুল পড়ুয়া বাচ্চাদের’নিরাপদ সড়ক চাই’এর দাবীতে বাংলাদেশ আজ উত্তাল। দেশের এহেন পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন-প্রবাসী বাঙালিরাও ভীষণ উদ্বিগ্ন। শিশু কিশোরদের যৌক্তিক এ দাবীর সাথে সহমর্মিতা প্রকাশের অভিপ্রায়ে গত ৩রা আগস্ট, শুক্রবার সন্ধ্যায় ‘আনন্দধারা’ (মেলবোর্নে পরিচালিত একটি বাঙ্গালী সাংস্কৃতিক বিদ্যালয়। উদ্যোগ নেয় এক প্রতীকী প্রতিবাদের।

‘আনন্দধারা’র পক্ষ থেকে এ সংহতি সভায় যোগদানের জন্য মেলবোর্নের বাংলাদেশ কমিউনিটিকে আহবান জানান, পাবলিক হেলথ ফিজিশিয়ান ডক্টর আজিজুর রহমান। আনন্দধারা সাংস্কৃতিক বিদ্যালয়ের অভিভাবকবৃন্দের বাইরেও প্রচুর মানুষ সমবেত হন। কমিউনিটি লিডারের এ উদ্যোগে সাড়া দিয়ে বাচ্চারা ‘নিরাপদ সড়ক চাই’, ‘চাই স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি’, ‘৪৭ বছর পর দেশ আমার ইমার্জেন্সি লেন পেয়েছে’, ‘মেলবোর্নবাসীরা আছি তোমাদের সাথে’ সহ আন্দোলন সংশ্লিষ্ট চমৎকার সব পোস্টার নিয়ে সুশৃঙ্খল দাঁড়িয়ে দেশের বাচ্চাদের সাথে তাদের একাত্মতা ঘোষণা করে। ডক্টর আজিজুর রহমান তখন সবার উদ্দেশ্যে বলেন, “দেশে স্কুল-পড়ুয়া বাচ্চারা আজ যে ন্যায্য দাবী নিয়ে রাজপথে নেমেছে, আমরা তাদেরকে আন্তরিক সমর্থন জানাচ্ছি! তারা তাদের সহজাত সততা দিয়ে বিগত কয়েকদিন ঢাকা শহরে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণের যে বিরল দৃষ্টান্ত দেখিয়েছে তা অতুলনীয়। আমরা যেকোনো ন্যায্য এবং অহিংস আন্দোলনে আমাদের অকুন্ঠ সমর্থন জানাই। আমরা নিরাপদ বাংলাদেশের জন্য নিরাপদ সড়ক চাই।

একই সমর্থন জানিয়ে আনন্দধারা’র পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন আনন্দধারার জেনারেল সেক্রেটারি মোহাম্মদ মুজিব শিশির, প্রেসিডেন্ট ফারজানা মাহফুজ সিমকি, প্রিন্সিপ্যাল এবং সংগীত শিক্ষক সাদিয়া হামিদ নিঝুম, নৃত্য শিক্ষক সৈয়দা সায়েরা। সভায় আগতদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন জান্নাতুল ফেরদৌস নৌজুলা, নাফিউল ইসলাম এবং মিতা চৌধুরী। সবশেষে সমবেত স্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে এ প্রতীকী প্রতিবাদ সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

স্বল্প সময়ের নোটিসেও ‘আনন্দধারা’ সফলতার সাথে প্রবাসী বাঙালির স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে দারুণ এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করতে সমর্থ হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close