সারাদেশ

মঈন খানের বাসায় কূটনীতিকদের ‘বৈঠক’

ঢাকা: বিএনপি, যুক্তফ্রন্ট ও ঐক্য প্রক্রিয়ার শীর্ষ নেতারা ড. আব্দুল মঈন খানের বাসায় কূটনীতিকদের সঙ্গে ‘বৈঠক’ করেছেন। যদিও দাবি করা হচ্ছে, সেখানে ‘নৈশভোজের’ আয়োজন ছিলো। মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টায় মঈন খানের গুলশানের বাসায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় বলে বিএনপি নেতাদের সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খানের বাসার ‘বৈঠকে’ বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকরা অংশ নেন। এদের মধ্যে ছিলেন- যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, নরওয়ে, নেপাল ও স্পেনের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত, নেদারল্যান্ডসের উপ-হাইকমিশনার।

বিএনপির নেতাদের মধ্যে ছিলেন-দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এমএ কাইয়ুম।

অন্যদিকে ছিলেন জাসদের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।

‘বৈঠক’ সূত্রে জানা গেছে, আগামী নির্বাচন নিয়ে বিএনপি তাদের অবস্থান কূটনীতিকদের কাছে তুলে ধরে। রাজনৈতিক ‘সুষ্ঠু পরিবেশ’ তৈরি হলে দলটি নির্বাচনে অংশ নেবে বলেও জানায়। আরেকটি সূত্রে জানা যায়, ‘বৈঠকে’বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য নিয়ে আলোচনা হয়েছে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ও ভোটের অধিকার রক্ষায় এ ঐক্য করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

এদিকে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কূটনীতিকেরা একে একে মঈন খানের বাসা থেকে বের হতে থাকেন। রাত ১১টার দিকে বেরিয়ে আসেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। এ সময় সাংবাদিকরা তার সঙ্গে কথা বলাতে চাইলেও, তা তিনি এড়িয়ে যান।

অন্যদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর রাত সোয়া ১১টা দিকে ওই বাসা থেকে বের হলেও, উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেননি। তবে ‘বৈঠকের’ বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে ‘নৈশভোজের’ আয়োজন ছিলো

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close